স্বার্থের জন্য নিজের বিশ্বাসকে ত্যাগ না করাটাই আদর্শ

ছবি:সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে
পরিচালক:অরিজিৎ বিশ্বাস
অভিনয়:চিরঞ্জিত চক্রবর্তী, মেঘনাদ ভট্টাচার্য, অঞ্জন দত্ত,শ্রীলা মজুমদার, কবীর সুমন,পরান বন্দ্যোপাধ্যায়

‘এজেন্ট বিনোদ’,’বদলাপুর’,’অন্ধাধুন’-এর কাহিনীকার অরিজিৎ বিশ্বাসের পরিচালনায় প্রথম বাংলা ছবি ‘সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে’ ইতিমধ্যে মুক্তি পেয়েছে।ছবির মুখ্য তিনটি চরিত্র-চিরন্তন(চিরঞ্জিত চক্রবর্তী),সঞ্জীব(অঞ্জন দত্ত) এবং টি.সি.পাল(মেঘনাদ ভট্টাচার্য)।ছবির কাহিনি স্বার্থান্বেষী,সুবিধাভোগী এবং আদর্শবাদীর দ্বন্দ্ব নিয়ে।টি.সি.পাল চরিত্রটা আমরা প্রায় প্রত্যেকেই দেখেছি-রাস্তায়,ট্রেনে ট্রামে।নাম কে.সি.পাল,হাওড়ার বাসিন্দা-তাঁর বিশ্বাস সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে।হতে পারে সেই বিশ্বাস কাল্পনিক কিন্তু সেই বিশ্বাসকে আঁকড়ে থাকাই তো আদর্শকে আঁকড়ে থাকা।বাকী দুই চরিত্র চিরন্তন ও সঞ্জীব একসময়ের বামপন্থী হলেও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের আদর্শকে ত্যাগ করে।নিজেদের আদর্শকে বিসর্জন দেয় চারপাশের চরিত্রগুলোও।ছবির কাহিনি পারমিতা মুন্সীর।সংলাপ ও চিত্রনাট্য লিখেছেন অরিজিত বিশ্বাস ও পারমিতা মুন্সী।বাংলা ছবিতে এমন চরিত্র নিয়ে খুব কম ছবিই হয়েছে।একজন মানুষ(টি সি পাল)যা বিশ্বাস করে সেটার জন্য চাকরী চলে যাওয়া, ছেলে স্ত্রীকে ছেড়ে রাস্তায় ফুটপাতে দিন কাটানো-এরকম বিশ্বাসের জন্য নিজের সবকিছু আত্যত্যাগী মানুষটাকে স্যালুট করতেই হয়।এই চরিত্রটাতে যিনি যোগ্য রূপদান করেছেন তিনি মেঘনাদ ভট্টাচার্য।চিরঞ্জিত চক্রবর্তী ও অঞ্জন দত্ত নিজেদের চরিত্রে জমিয়ে অভিনয় করেছেন।পাশাপাশি পল্লবী চ্যাটার্জী(অঞ্জনের স্ত্রীর চরিত্রে),পরান বন্দ্যোপাধ্যায়(বামপন্থী রাজনৈতিক নেতা),শ্রীলা মজুমদার(টি সি পালের স্ত্রী),কবীর সুমন নিজেদের চরিত্র অনুযায়ী যথাযথ।সাধুবাদ জানাতে হয় এভিএ ফিল্ম প্রোডাকশন প্রাঃ লিঃ প্রযোজনা সংস্থাকে-এরকম একটা ছবি প্রযোজনা করার জন্য।

রিভিউ:রামিজ আলি আহমেদ

প্রিয়া প্রেক্ষাগৃহে অনুষ্ঠিত ‘সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে’ ছবির প্রিমিয়ারের বিভিন্ন মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করলেন আনন্দ সংবাদ-এর প্রধান চিত্রগ্রাহক বিশ্বজিত সাহা

পৌলমি, পবন কানোরিয়া,বুদ্ধদেব দাসগুপ্ত, অরিজিৎ বিশ্বাস,চিরঞ্জিত ও প্রদীপ চুড়িয়াল
Please follow and like us:
0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *