জনসেবামূলক কর্মসূচির মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হল মারোয়াড়ি যুবা মঞ্চের বাংলা-সিকিম প্রান্তিয় অধিবেশন ধরোহর পর্ব

আনন্দ সংবাদ:কথায় বলে, জীবে প্রেম করে যেই জন / সেই জন সেবিছে ঈশ্বর। আর এই ভাবনায় প্রতিনিয়ত নিজেদেরকে উৎসর্গ করে চলেছেন মারোয়াড়ি যুবা মঞ্চ। তাই শনিবার রিষড়ার সেবক সঙ্ঘ-এ শুরু হল মারোয়াড়ি যুবা মঞ্চের বাংলা-সিকিম প্রান্তিয় অধিবেশন । এটি ২৬তম প্রান্তিয় সমাবেশের একটি যৌথ-ক্ষুদ্র অধিবেশন । যার নাম ধরোহর পর্ব। যেখানে প্রতিফলিত হল আধার, সংস্কার ও সংকল্প-এর মতো বিভিন্ন সমাজ সেবামূলক আলোচ্যসূচি। যেখানে উপস্থিত ছিলেন বাংলার ৫৬ শাখার মধ্যে ৩০টি শাখার ২৫০ জন প্রতিনিধি । দুদিন ব্যাপী এই অধিবেশনে অতিথিসভা আলোকিত করেছেন রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী শ্রী তপন দাশগুপ্ত ,
শ্রী কল্যাণ ব্যানার্জী ( সাংসদ ,শ্রীরামপুর), শ্রী হুমায়ুন কবীর(পুলিশ কমিশনার,চন্দননগর ), বৈশালী ডালমিয়া ( বিধায়ক, বালি বিধানসভা),
শ্রী দীনেশ বাজাজ(প্রাক্তন বিধায়ক, কলকাতা), শ্রী বিজয় সাগর মিশ্র(রিষড়া পৌরসভার চেয়ারম্যান), শ্রী বিবেক গুপ্ত (প্রাক্তন সাংসদ ,রাজ্যসভা) , ডঃ সুদীপ্ত রায় (বিধায়ক,শ্রীরামপুর), প্রহ্লাদ গোয়েঙ্কা, নন্দকিশোর আগরওয়াল, প্রকাশ চন্ডালিয়া, সুবোধ দাগা, ওমপ্রকাশ আগরওয়াল, তমাল মুখার্জি, সঞ্জয় শর্মা, উমেশ গর্গ, প্রমোদ শাহ, অমিত আগরওয়াল,প্রদীপ জিউরাজকা
মনোগ্যা লোইওয়াল সহ বিশিষ্টজনেরা।

এদিন এই অনুষ্ঠান সম্পর্কে আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান শ্রী প্রমোদ জৈন জানান, “১৯৮৫ সালে জনসেবা, সামাজিক সংস্কার, ব্যক্তি উন্নয়ন, জাতীয় মেলবন্ধন – অখণ্ডতা , সামাজিক প্রতিষ্ঠান এবং একইসঙ্গে আত্মসুরক্ষা, এই পাঁচটি নীতির মাধ্যমে শুরু হয় অখিল ভারতীয় মারোয়াড়ি যুবা মঞ্চ। আর এখন দেখতে দেখতে ২০টি রাজ্যে রয়েছে আমাদের উপস্থিতি। আজ এবং ১২ই জানুয়ারি, এই দুদিনব্যাপী অনুষ্ঠানে সংস্কার, সংকল্প এবং সক্রিয়তার মতো কর্মসূচির উপর নির্ভর করে চলবে এই মারোয়াড়ি যুবা মঞ্চের পশ্চিমবঙ্গ-সিকিম প্রদেশ অধিবেশন । পাশাপাশি এদিন ২০১৮-১৯-এর কাজের ভিত্তিতে দেওয়া হবে বার্ষিক পুরস্কার এবং একইসঙ্গে থাকছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও।”

আপনাদের জানিয়েরাখি, গত বছর অখিল ভারতীয় মারোয়াড়ি যুবা মঞ্চের পক্ষ থেকে ৩৬৫ দিন ধরে আয়োজিত হয়েছে রক্তদান শিবির। এছাড়াও সারা ভারতবর্ষে ক্যান্সার রোগীদের চিহ্নিত করে তাদের সঠিক চিকিৎসা পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য রয়েছে ক্যান্সার শনাক্তকরণ ভ্যানের সুবিধা। পাশাপাশি রয়েছে কৃত্রিম অঙ্গপ্রত্যঙ্গ সরবরাহের সুব্যবস্থা। পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে মারোয়াড়ি যুবা মঞ্চের রিষড়া শাখায় রয়েছে ৩০০-র বেশি সদস্য সংখ্যা, আর এখনও পর্যন্ত তারাই সর্বশ্রেষ্ঠ শাখা হিসাবে গন্য । এই শাখার নেতৃত্বে ৩৩টি ওয়াটার কুলার পাশাপাশি গত বছর ৩টি রক্তদান শিবির,কম্বল বিতরণ ইত্যাদির নানান সমাজ সেবামূলক আয়োজন করা হয়েছে।

এদিন এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শাখা সম্পাদক শ্রী মোহিত গুপ্ত, শাখা সভাপতি শ্রী সুশীল ভাওসিংকা , ডিভিশনাল ভাইস-চেয়ারম্যান শ্রী প্রমোদ আগরওয়াল, প্রাদেশিক সভাপতি শ্রী বিপুল শর্মা, কমিটির সম্পাদক শ্রী অশোক পুরোহিত, প্রাদেশিক সাধারণ সম্পাদক শ্রী ধীরজ নাহার, সহকারী সচিব শ্রী ধর্মরাজ মাহেশ্বরী সহ অন্যান্যরা ।

Please follow and like us:
0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *